সাম্প্রতিক সংবাদ

রাবি শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের মারধর, বিচারের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ

প্রকাশিত: ৩:২০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৬, ২০১৯

রাবি শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের মারধর, বিচারের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ

 আলোকিত সিলেট ডেস্ক ::: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থী সোহরাব হোসেনকে ছাত্রলীগকর্মীদের মারধরের প্রতিবাদে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা। শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে বিক্ষোভ করেন তারা। এর আগে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে শিক্ষার্থীরা। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের আন্দোলন অব্যাহত ছিল।

কর্মসূচি থেকে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা তিনটি দাবি জানান। দাবিগুলো হলো নাহিদ ও আসিফসহ মারধরকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা, হল প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ করা, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সোহরাব হোসেনের চিকিৎসাভার বহন করা।

শিক্ষার্থীরা বলেন, ক্যাম্পাসে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগের মারমুখী আচরণ যেন বেড়েই চলেছে। তুচ্ছ ঘটনায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের এর আগেও ছাত্রলীগ মারধর করেছে। কিন্তু এসব ঘটনার কোনো বিচার আমরা পাইনি। ছাত্রলীগও এসব অপরাধীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। বিচারের নামে বহিষ্কারের নাটক করে ছাত্রলীগ। কাউকে বহিষ্কার করলেও কিছুদিন পর আবার তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও নিশ্চুপ। তাদের কাছে লিখিত অভিযোগ করলেও বরাবরের মতো ‘দেখছি’ ‘দেখছি’ বলেই দায় এড়িয়েছেন তারা।

এর আগে শুক্রবার ১৫ নভেম্বর মধ্যরাতে সোহরাব হোসেনকে শহীদ শামসুজ্জোহা হলে ডেকে নিয়ে গিয়ে ল্যাপটপ চুরির ধুয়া তুলে বেধড়ক মারধর করে ছাত্রলীগকর্মী আসিফ ও নাহিদ। মারধরে সোহরাবের মাথা ফেটে যায় ও বাম হাত ভেঙে যায়। সে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ